বাঙ্গালীর করোনা ভীতি এবং স্বার্থপরতা

বিশ্বব্যাপী এখন করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও প্রতিকার এ একযোগে সংগ্রাম করে যাচ্ছে। বাংলাদেশেও এর ব্যতিক্রম নয়। বাংলাদেশেও এর প্রভাব দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বাংলাদেশের বেশির ভাগ মানুষ এখন মানসিকভাবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। মানসিকভাবে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির চিকিৎসা হোম কোয়ারেনটাইনে সম্ভব নয়।

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস আসার পর থেকে আমরা যেভাবে ব্যক্তিগতভাবে মার্কেট থেকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, স্যাভলন, সাবান অতিরিক্ত পরিমান ক্রয় করে ঘর ভর্তি করে মার্কেটে কৃত্রিম সঙ্কট সৃষ্টি করছি তাতেই বুঝা যায় বাঙালি হিসেবে আমরা কতটা স্বার্থপর।

কিন্তু আমাদের সমাজে যাদের হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, স্যাভলন কেনার সামর্থ নাই তাদের জন্য আমরা চিন্তিত নই। তাদের কথা আমরা কেউ ভাবছি না।

আমরা সবাই যদি যার যার অবস্থান থেকে যেসব ব্যক্তির হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, স্যাভলন কেনার সামর্থ্য নাই তাদেরকে একটা করে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, স্যাভলন উপহার হিসেবে দিই তাহলেই আমরা সম্মিলিতভাবে এই করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদ থাকতে পারবো।

আমরা যখন বাসার বাইরে বের হয়ে রিকশা, বাস ব্যবহার করছি বা বাজার থেকে পণ্য ক্রয় করছি, তারা কিন্তু হ্যান্ড স্যানিটাইজার মাস্ক ব্যবহার করছে না, ফলে আমরা নিজেরা অতিরিক্ত পরিমাণ হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক ব্যবহার করলেও আমরা অনিরাপদ ।

তাই আসুন আমরা সামর্থহীন সবাইকে একটা করে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক, স্যাভলন উপহার দিই। বাংলাদেশ থেকে করোনা ভাইরাস বিদায় করি।

More Info:  Covid-19 Coronavirus Outbreak

Other Source: https://www.who.int/emergencies/diseases/novel-coronavirus-2019

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top